শুক্রবার, ভোর ৫:০৯, ২২শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি
ভোলা ট্রিবিউনের পক্ষ হতে সকলকে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
জাতীয় | আন্তর্জাতিক | ভোলা সদর | দৌলতখান | বোরহানউদ্দিন | লালমোহন | তজুমুদ্দিন | চরফ্যাশন | মনপুরা | ভোলার ইতিহাস ঐতিহ্য | বিশেষ সাক্ষাৎকার | প্রবাসীদের কথা | পাঠক কলাম |

ভোলার চরফ্যাশনে ইউপি নির্বাচনের সহিংসতায় নিহত পরিবারে শোকের মাতম, গুলিতে হতাহতের ঘটনা পরিদর্শনে ডিআইজি

আপডেট : জুন, ২৪, ২০২১, ৬:৫৭ অপরাহ্ণ

:

শিমুল চৌধুরী/ এ আর মামুন:
ভূমিহীন দরিদ্র পরিবারের ছেলে মনির (২২)। মা, বাবা ও  বোনদের নিয়ে থাকতেন ভোলার চরফ্যাশনের চরফকিরা গ্রামের বেড়ীবাধেঁর ঢালে টিনের ছাউনি দেওয়া একটি ছোট ঘরে। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে মনির চতুর্থ। ফাহিমা, রিনা, সালমা বড়, মিতু ছোট বোন। সকল বানদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। মনির বিয়ে করেননি। ১৫/২০ দিন আগে বাবা বশির সিকদার পাশের গ্রামে মেয়ে দেখেছেন। মনিরের বাবা বশির উল্লাহ একজন দিনমজুর। বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন। কাজকর্ম তেমন করতে পারেন না। মনির মাছ শিকার করে সংসার চালাতেন। সাগরে মাছ শিকার বন্ধ থাকায়  তিনি বাড়িতে ছিলেন। এরই মধ্যে গত সোমবার (২১ জুন) ইউপি নির্বাচল চলাকালীন গুলিতে মারা যায় মনির। স্থানীয়রা বলেন- ভোটের দিন সকালে ইউছুফ ও ইয়াছিন দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পুরুষ কেন্দ্রে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এরপর চর ফকিরা কো-এইড প্রাথমিক বিদ্যালয় মহিলা কেন্দ্রে মেম্বার প্রার্থী ইয়াছিনের সমর্থকরা ভোট কেন্দ্র দখল করতে গেলে পুলিশ গুলি ছুড়ে। গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান মনির। আলাউদ্দিন নামের আরো একজন গুলিবিদ্ধ বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে রয়েছে। যদিও পুলিশ ও প্রিজাইডিং বলছেন- পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়েছেন। তাদের গুলিতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। অপরদিকে পুলিশ সুপার গুলি ছোঁড়ার কথা স্বীকার করলেও পুলিশের গুলিতেই যে মনির মারা গেছেন তা স্বীকার করছেন না।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনা পরিদর্শনে আসেন বরিশাল রেঞ্জের পুলিশের ডিআইজি আক্তারুজ্জামান। তার সাথে ছিলেন ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার। এসময় নিহতের বাবা বশির উল্লাহ ডিআইজিকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। ডিআইজি তাকে শান্তনা দেন। সমবেদনা জানান। আর্থিক সহায়তা করেন এবং ন্যায় বিচারের আশ্বাষ দেন।
মনিরের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, মনিরের মা কহিনুর বেগম পুত্র শোকে পাথর হয়ে বসে আছে। মানুষ দেখে ফ্যাল ফ্যাল করে কান্না করে অজ্ঞান হয়ে যায়। এ সময় মনিরের বাবা ও বোন দের কান্না ও আহাজারিতে ভারি হয়ে ওঠে সেখানকার বাতাস। এলাকাবাসী হত্যা কারীদের ফাসির দাবিতে মিছিল করেছেন।
হাজারী গঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম হাওলাদার বলেন- মনির পুলিশের গুলিতে মারা গেছেন। মামলা হয়েছে নিরপরাধ মানুষের বিরুদ্ধে। প্রকৃত অপরাধীর শাস্তির দাবী করেন তিনি।
প্রিজাইডিং অফিসার ইমাম হোসেন বলেন- বাহিরে দুই মেম্বার প্রার্থীর প্রার্থীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এরপর এক পক্ষ কেন্দ্রের কেচিগেট ভেঙ্গে ভোট কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করলে পরি¯ি’তি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। তবে পুলিশের গুলিতে কেউ মারা যায়নি।
শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল  ইসলাম জানান, নিহত মনিরের পিতা বশির সিকদার বাদী হয়ে ইউছুফ সিকদারের ছেলে রিয়াজসহ ১০ জনকে সনাক্ত, অ ৫০/৬০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে শশীভূষণ থানায় সোমবার বিকেলে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায়  রিয়াজ সিকদারকে পুলিশ গ্রেফতার করে মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা।
পুলিশ সুপার সরকার মোঃ কায়সার বলেছেন, ওই সময় পুলিশ গুলি ছুঁড়েছে ঠিকই। তবে, পুলিশের গুলিতে মনির নিহত হয়নি।
পুলিশের বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি আকতারুজ্জামান বলেন- নির্বাচনের দিন একটি কেন্দ্রে হামলার ঘটনা ঘটে, পুলিশ সরকারী জানমাল ও অফিসারদের রক্ষায় ফাঁকা গুলি করে জনতাকে চত্রভঙ্গ করে। পরবর্তীতে অধুরে একটি ঘটনা ঘটে, একজন মারা যায়। ভিক্টিমের বাবা দরিদ্র একমাত্র উপার্জনক্ষম ছেলেকে হারিয়েছে। আমাদের দুটি দায়িত্ব রয়েছে- সামাজিক ভাবে মানুষ হিসেবে ভিক্টিম পরিবারে পাশে দাড়ানো।  প্রকৃত আসামীদের ধরে উপযুক্ত বিচার করা।
পুলিশের গুলিতে মারা গেছে এমন অভিযোগ প্রসংগে বলেন- অনেকের অনেক বক্তব্য থাকতেই পারে। রাজনৈতিক বক্তব্যও থাকতে পারে। ঘটনা এসে আমরা সবগুলো বিষয় পুঙ্খানু, পুঙ্খানুভাবে ভাবে চেক করে দেখছি। পুলিশ অভিযুক্ত হলে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিব। আমাদের উদ্দেশ্য কাউকে বাচানো বা ফাঁসানে না। মুল উদ্দেশ্য হবে- প্রকৃত ঘটনা কি ঘটেছে, কারা ঘটিয়েছে, তা উৎঘাটন করে প্রকৃত অপরাধিকে আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত বিচার করা। পুলিশ সরকারী সম্পদ রক্ষায় গুলি করতেই পারে। আইনে তাকে সে ক্ষমতা দেয়া আছে।

আপনার মন্তব্য এই বক্সে লিখুন

উপদেষ্টা: মো.নকীব তালুকদার
উপদেষ্টা সম্পাদক: আবুল কালাম আজাদ,সাংগঠনিক সম্পাদক,বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম(বিএমএসএফ) ঢাকা।
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক-মো.জাহিদুল ইসলাম দুলাল,সভাপতি লালমোহন জার্নালিষ্ট ফোরাম,ভোলা।
সম্পাদক: মো.শিমুল চৌধুরী
প্রকাশক:আরিফুর রহমান(রাহাত)
অফিস: ৭২৪,১ম তলা প্রেসক্লাব ভবন,ভোলা।
লালমোহন অফিস: ১২ নং ওয়ার্ড লালমোহন পৌরসভা,ভোলা।
বার্তা কক্ষ ই-মেইল: [email protected]
মোবাইল: ০১৭১৫-২৬১৬৪৫

প্রতিষ্ঠাতা: মোঃ মহির উদ্দিন (মাহিম)

কারিগরি সহায়তা: Next Tech

শিরোনাম :
★★ লালমোহনে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ১জনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ ★★ শেখ কামাল সামাজিক কর্মে তরুণদের নেতৃত্ব দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছিলেন- এমপি শাওন ★★ শহীদ শেখ কামাল ছিলেন বাংলাদেশের আধুনিক ক্রীড়া ও সংস্কৃতি আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ-এমপি শাওন ★★ স্কুলের মাঠে ব্লেট ও কাঁচ ভাঙা দিয়ে খেলাধুলায় বাঁধা! ★★ তরিকুল আলম চৌধুরীর সহধর্মিণীর মৃত্যুতে হলি ফ্যামিলি হাসপাতালের শোক ★★ ভোলায়, ২৪ ঘন্টায় করোনায় আরও ১৬৫ জন আক্রান্ত ★★ নারীনেত্রী হেলেনার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা করছেন তুহিন খন্দকার ★★ লালমোহনে সাংবাদিকদের রোগ মুক্তি কামনা করে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত ★★ লালমোহনে প্রতিপক্ষের হামলা ২০জনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ ★★ ভোলায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৩২ জনের বিরুদ্ধে মামলা, ৩২ জনকে ২২ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা